শাটডাউন মানে কি ?সারাদেশে শাট ডাউন ঘোষনা করা হলো 2021

শাটডাউন মানে কি ?সারাদেশে শাটডাউন ঘোষনা করা হলো 2021

আসসালামুয়ালাইকুম বাংলাদেশের অনেকেই জানেনা শাটডাউন মানে কি।এই শাটডাউন নিয়ে মানুষ নানা ধরনের কথা বলছে আবার এটা নিয়ে কেউ মজা ও করছে।বাংলাদেশ সহ পুরো বিশ্বে করোনার তান্ডব চালিয়ে যাচ্ছে প্রায় দুই বছর ধরে।বাংলাদেশে ইতি-মধ্যে ১৪ দিনের জন্যে শাটডাউন ঘোষনা করা হয়েছে।

 

কোভিড ১৯ সারা বিশ্ব সহ আমাদের বাংলাদেশে কোভিড ১৯ সংক্রামণ এর গতি দিন দিন বেড়েই চলছে।দেশের এই নাজুক অবস্থায় করোনা বা কোভিড ১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগারী পরামর্শ কমিটি ১৪ দিনের শাট-ডাউন দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।গত বৃহস্পতিবার ২৪ জুন কোভিড ১৯ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লাহ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। দেশে শাট-ডাউন ঘোশনা করা হলো ঠিক ই কিন্তু এর শাটডাউন মানে কি সেটা অধিকাংশ মানুষ ই জানেনা।

 

শাট-ডাউন

শাটডাউন মানে কি ? এই প্রশ্ন করা হয়েছিল তিনি তার উত্তর এ বলেছিলেন “লকডাউন এ কিছু কিছু জায়গা বন্ধ ছিলো আবার কিছু কিছু জায়গা খোলা ছিলি,কিন্তু শাটডাউন এ সব কিছুই বন্ধ থাকবে।শুধু জরুরি সেবা ছাড়া সবকিছুই বন্ধ থাকবে।অফিস আদালত,দোকান পাট,গনপরিবহন সহ সব কিছুই বন্ধ থাকবে”।পরিশেষে ১৪ দিনের শাট-ডাউন কার্যকর করা হয়।

 

শাট-ডাউন এর ফলাফল

কোরনা ভাইরাস যখন কোনভাবেই মোকাবেলা করা যাচ্ছিলোনা তখন ইন্ডিয়ার মুম্বাই তে এবং দিল্লিতে কঠোর শাট-ডাউন ঘোষনা করা হয়েছিলো।মুম্বাই তে ৬ সপ্তাহ গনপরিবহন বন্ধ ছিলো,এবং মুম্বাই তে আরো ৩ সপ্তাহ বন্ধ ছিলো।এমন একটা সময় গেলো দিল্লি তে যেখানে প্রতিদিন প্রায় ২৮ হাজার মানুষ শনাক্ত হয়েছিলো কোভিড ১৯ এ কিন্তু এখন সেখানে গড়ে ১৫০ শনাক্ত হচ্ছে।কয়েক দিন আগে মরদেহ নিয়ে তারা বিপাকে পড়েছিল কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে তাদের কোভিড এ মৃত্যুর সংখ্যা অনেক-টাই কমে গেছে।

 

কি কি চালু থাকবে

শাটডাউন মানে কি সেটা তো আমরা জানলাম,এখন জেনে নেওয়া যাক এই শাট-ডাউনে কি কি কি চালূ থাকবে এবং কি কি বন্ধ থাকবে।ইতিমধ্যে আপনারা জেনে গেছেন জরুরি সেবা ছাড়া সবকিছুই বন্ধ থাকবে,জরুরি সেবা বলতে মেডিসিন শপ,এম্বুলেন্স,ফায়ার,সার্ভিস হাসপাতাল।সরকার বারবার লক-ডাউন দেয় আমরা সেটাকে তোয়াক্কা না করে অবাধে চলাচল করি।কোভিড১৯ কিমিটির সভাপতি বলেন আপনারা এই ২ সপ্তাহ কষ্ট করেন,এই ২ সপ্তাহ যদি একটু কষ্ট করতে না পারেন তাহলে ভবিষ্যৎ এ কি হবে সেতা আর আমাকে বলতে হবেনা।

শাট-ডাউন সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে লিঙ্ক এক্লিক করুন।

 

 

গাজিপুরের অবস্থা

গত বছর সব জেলার মত গাজিপুর জেলা  কে ও লক-ডাউনের আয়তায় আনা হয় কিন্তু কে শোনে কার কথা।গাজিপুরে পোশাক শিল্প-কারখানা বর্তমানে অনেক বেশি,এখানে মানুষ শাস্থবিধি না মেনেই কাজ করে যাচ্ছে।গাজিপুরের বিভিন্ন কারখানা তে দিনের বেলায় কঠোর নিয়ম থাক্ললে ও রাতের বেলায় পুরো উলটো নিয়মে চলছে কারখানা গুলো।তাদের বেশিরভাগ ই জানেনা শাটডাউন মানে কি।

গাজিপুরে মানুষের অবাধ চলাচল থেমে নেই।বিস্তারিত

Leave a Comment

Your email address will not be published.