হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে জান্নাত আরা ঝর্নার মামলা । 2021

হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে জান্নাত আরা ঝর্নার মামলা

 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের রিসোর্টে নারীসহ বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় জনগণের হামলার মুখে পড়েছিলেন হেফাজত নেতা মামুনুল হক। সেখানে তাকে জনগন অবরুদ্ধ করেছিলো এবং রীতিমত অপমান ও করেছিল । তার পর থেকে আলোচনা সমালোচনার শেষ নেই সারা বাংলাদেশে ।

হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে জান্নাত আরা ঝর্নার মামলা । 2021
হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে জান্নাত আরা ঝর্নার মামলা । 2021

থানায় মামলা

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দুই বছর ধরে বিভিন্ন হোটেল নিয়ে শারীরিক সম্পরকের অভিযোগে হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে মামলা করেছে জান্নাত আরা ঝর্না । নারায়ণগঞ্জ এর সোনারগাও থানায় হেফাজত নেতা মামুনুল হক সাহেব এর বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি ।

হোটেলে আটক হওয়ার পর সেখান থেকে বের হয়ে তার স্ত্রী কে ফোন করে বলেন মেয়েটি শহিদুল ভাইয়ের বউ । এখন সবায় বলছে যে এটি তার বানোয়াট ঘটনা। হোটেলে আটক হওয়ার পর কিন্তু মামুনুল_হক সাহেব বলেছিলেন এটা তার দ্বিতীয় স্ত্রী । জান্নাত আরা ঝর্না আজ সকাল ৯.৪৭ মিনিটে সোনারগাও থানায় প্রবেশ করেন সাথে ছিলো তার বড় ছেলে আব্দুর রহমান ।

 

 

জান্নাত আরার অভিযোগ

 

তারপর তারা অফিসার ইনচার্জ রুমে যায় এবং ১ ঘন্টা ধরে মামলা রেকর্ড করে । যেই অভিযোগ টি জান্নাত আরা ঝর্ণা থানায় করেছেন সেখানে বলা হয়েছে ২০০৫ সালে তার স্বামী শহিদুল এর সাথে মামুনুল হক এর ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয় । সেই সুত্র ধরেহেফাজত নেতা মামুনুল হক নাকি সেখানে যেতেন মাঝে মাঝে । এক পর্যায়ে মামুনুল_হক নাকি তার দিকে খারাপ নজর দিতে থাকে , এতে করে তাদের সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হয় । জান্নাত আরা ঝর্ণা বলেন মামুনুল হকের কু-বুদ্ধি শুনেই তার স্বামী শহিদুল এর সাথে ১০ ই আগস্ট ২০১৮ সালে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে ।

 

বিবাহ বিচ্ছেদ

জান্নাত সরাসরি তার বিবাহ বিচ্ছেদ এর জন্যে মামুনুল হক কে দোষারোপ করছে । শহিদুল এর সাথে বিবাহ-বিচ্ছেদ এর পর  অর্থনৈতিক ভাবে খুব সমস্যায় পড়ে যান জান্নাত আরা ঝর্ণা । তার দাবি মামুনুক_হক তাকে সহযোগিতার নাম করে কৌশলে ঢাকায় নিয়ে আসেন । জান্নাত আরা ঝর্ণা যখন ঢাকায় চলে আসেন তখন তাকে মামুনুল সাহেব এর পরিচিতদের বাসায় রাখে , এর পরে তাকে গ্রিন রোডে একটি সাবলেটের বাসা ভাড়া করে দেন সেখানেই থাকতেন জান্নাত আরা ঝর্ণা ।

 

সাংবাদিক জান্নাত কে মামলা এর বিষয়ে প্রশ্ন করলে সে বলে উনি আমার সরলতার সুযোগ নিয়ে আমার সাথে অন্যায় করেছেন , অনেক দিন যাবত এই প্রতারনা করে আসছে আমার সাথে । সে আরো বলে আমি রাষ্ট্রের কাছে মামুনুল হক এর সুস্থ বিচার চাই । জান্নাত আরা ঝর্ণা তের বক্তব্য তে বুঝিয়েছেন মামুনুল হক কতটা খারাপ চরিত্রের অধিকারী। তার ২ সন্তান সহ সুখের সংসার ছিলো শহিদুল এর সাথে , এসব কিছুর জন্যে দায়ি মামুনুল হক ।

তার কথায় আরো জানা যায় টানা ২ বছর তাকে যৌনদাসি হিসেবে ব্যাবহার করে সেই নেতা মামুনুল। এত গুলো ঘটনা ঘটলো , কোনটা ভুল আর কোনটা ঠিক সেটা মহান আল্লাহ ই ভাল জানেন । বর্তমানে বাংলাদেশ , ইন্ডিয়া সহ সব দেশের অবস্থা খুব একটা ভাল না , কারন একটাই কোভিড ১৯ । আপনি চাইলে ইন্ডিয়ার করোনা ভাইরাস সম্পর্কে জানতে  ভিজিট করুন
ইন্ডিয়া তে করোনা পরিস্থিতি

অনেকে মনে করছেন এগুলো সব সাজানো ঘটনা , আবার অনেকেই মনে করছেন এগুলো সত্য ঘটনা । নিশ্চয় আল্লাহ সব ভাল জানেন । মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দেওয়ার পর তার এক বন্ধু বলেন ” আমরা এগুলোর জন্যে আন্দোলন করবনা এবং রাজপথে ও নামবনা , আল্লাহ সব দেখছেন । আমরা সুধু আল্লাহর কাছে_দোয়া রাখবো” । তার কথা মতে এগুলো সব সাজানো ঘটনা । তার বন্ধুর বক্তব্য টির ভিডিও টি দেখতে ক্লিক করুন । 

 

পরিচয়

mamunul haque
হেফাজত নেতা মামুনুল হক

মাওলানা মোঃ মামুনুল হক , একজন বাংলাদেশি ইস্লামি পন্ডিত , রাজনীতিবিদ ও ইসলামিক বক্তা , তিনি বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব , জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসার হাদিস বিভাগীয় প্রধান এবং বাবড়ি মসজিদ বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা । তার জন্ম হয়েছিলো ঢাকার আজিমপুরে ১৯৭৩ সালের নভেম্বর মাসে । তার পরিবার ছিলো এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবার । তারা ববা আজিজুল হক ছিলেন বাংলাদেশের সুপরিচিত ইসলামিক পন্ডিত । তার ভাইবোনের সংখা ১৩ জন ।১৯৯৬ সালে তিনি দাওরায়ে হাদিস অথবা মাস্টার্স থেকে প্রথম স্থান অধিকার করেন । এছাড়া ও তিনি মাদরাসার পড়া শেষ করে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এস এস সি এবং এইচ এস সি পরিক্ষা দেন ।
হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর সম্পর্কে আরো জানতে ভিডিও টি দেখতে পারেন । ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

 

 

1 thought on “হেফাজত নেতা মামুনুল হক এর বিরুদ্ধে জান্নাত আরা ঝর্নার মামলা”

Leave a Comment

Your email address will not be published.